Facebook Post Boost

Choose Facebook Ads Plan Today

ফেসবুক অ্যাড একাউন্ট নিয়ে আপনি নিজেই অ্যাড দিতে পারবেন

অনেকের অ্যাড একাউন্ট ফ্ল্যাগ অথবা ডিসেবল অথবা পেপাল এবং মাস্টার কার্ড না থাকার কারণে ফেসবুকে অ্যাড দিতে পারেন না ! তারা চিন্তা করেন যদি আমার একটা অ্যাড একাউন্ট থাকতো তাহলে আমি নিজেই অ্যাড দিতে পারতাম, আপনাদের এই সকল কথা মাথায় রেখেই নিয়ে আসলাম অ্যাড একাউন্ট সুবিধা যাতে আপনার কোনো পেপাল বা মাস্টার কার্ড লাগবে না শুধু প্রিপেইড ব্যালেন্স দিয়ে আপনি অ্যাড দিতে পারবেন খুব সহজেই।

POST BOOST

TK270/ 3 Days

  • Advertise 7 Days
  • Daily Budget 3 RM
  • Service Charge Free
  • Reach 3000-7000
  • 100% Real Reach

POST BOOST

TK1200/ 14 Days

  • Advertise 7 Days
  • Daily Budget 3 RM
  • Service Charge Free
  • Reach 15000-45000
  • 100% Real Like

POST BOOST

TK2400/ 28 Days

  • Advertise 7 Days
  • Daily Budget 3 RM
  • Service Charge Free
  • Reach 19000-85000
  • 100% Real Like

ফেসবুক অ্যাড একাউন্ট নিয়ে নিন

GET ADS ACCOUNT

ফেসবুক অ্যাড একাউন্ট অর্ডার করতে ক্লিক করুন এখনই

Click Here

যেভাবে অর্ডার করবেন

ORDER NOW বাটন এ ক্লিক করে অর্ডার করুন আপনার অ্যাড একাউন্ট

ORDER NOW

Questions and answers

1আমাদের এখানে অ্যাড দেওয়ার শর্ত সমূহ:
১. আপনার পেজ প্রমোট বা পোস্ট বোস্ট এর কারণে যদি আমাদের ফেসবুক অ্যাড একাউন্ট ফ্ল্যাগ হয়ে যায় তাহলে আপনার পেমেন্টকৃত টাকা রিটার্ন করবো না। যদি রাজি থাকেন তাহলে অ্যাড রান করবো। ২. যদি অন্য জনের পেজ প্রমোট বা পোস্ট বোস্ট এর কারণে একাউন্ট ফ্ল্যাগ করে তাহলে আপনার অ্যাড কোনো প্রকার চার্জ ছাড়াই আমরা নতুন একাউন্টে অ্যাড ট্র্যান্সফার করে দেবো। ৩. টাকা রিটার্ন না দেওয়ার কারণ হলো আমাদের অ্যাড একউন্টে ফ্ল্যাগ হলে যে ব্যালেন্স থাকে সেটা ফেসবুক আমাদের রিটার্ন দেয় না। ৪. আপনার অ্যাড এর কারণে আমাদের অ্যাড একাউন্ট ফ্ল্যাগ করেছে কিনা সেটা চাইলে আমরা প্রমান দেখিয়ে দেবো। ৫. আপনার অ্যাড প্রিভিউ থেকে শুরু করে অ্যাড স্পেন্ড হওয়ার আগে এবং পরে পর্যন্ত ফ্ল্যাগ বলে গণ্য করা হবে সুতরাং ওপরের দেওয়ার শর্ত গুলো মেনে আমাদের কন্ফার্ম করুন। ..
2অ্যাকাউন্ট ফ্ল্যাগ হলে কে দায়ি ?
আমরা ২ ভাবে আমাদের সার্ভিস প্রদান করে থাকি। আপনি চাইলে আমাদের দ্বারা আপনার পেজ প্রমোট বা পোস্ট বুস্ট করাতে পারেন বা আপনি নিজেও করতে পারবেন। আমরা প্রি-পেইড এড অ্যাকাউন্ট প্রদান করে থাকি, যার মাধ্যমে আপনি নিজেই এড দিতে পারবেন। কোন প্রকার ভিসা বা মাস্টারকার্ডের প্রয়োজন নেই। আমরা মালয়েশিয়ান কারেন্সির (MYR বা RM) মাধ্যমে এড দিয়ে থাকি। আপনার প্রয়োজন মতো আমাদের মাধ্যমে আপনি আপনার এড অ্যাকাউন্টে ব্যালেন্স রিচার্জ করতে পারবেন। আমরা বিকাশের মাধ্যমে পেমেন্ট নিয়ে থাকি। বিঃ দ্রঃ আমরা যেহেতু প্রি-পেইড অ্যাড অ্যাকাউন্ট প্রভাইড করে থাকি, সেহেতু ব্যালেন্সটা ওই অ্যাকাউন্টে থাকে। আর ওই অ্যাড অ্যাকাউন্ট ফ্ল্যাগ করলে সেই ব্যালেন্স সহ ফ্ল্যাগ হয়। যা ৯৯.৯% ক্ষেত্রে ঠিক হয় না, মানে ফেসবুক ফ্ল্যাগ করা অ্যাকাউন্ট আন-ফ্ল্যাগ করে না। তো আপনি যখন প্রি-পেইড অ্যাড অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করবেন বা নিতে চাইবেন, অবশ্যই মনে রাখবেন ওই ফ্ল্যাগ হওয়া অ্যাড অ্যাকাউন্টের ব্যালেন্সের দায়ভার আপনাকে নিতে হবে। এতে প্রমোট আমরা দায়ী থাকবে না।
3প্রতিদিন কতো লাইক আসতে পারে প্রমোট করলে ?
প্রতিদিন কতো লাইক আসতে পারে প্রমোট করলে বা কত জন মানুষ সেটা দেখবে? আসলে লাইক টা আসে হচ্ছে পেজের ক্যাটাগরির ওপর যেমন একটা খেলার পেজ বিনোদন পেজ কোনো সুপার ষ্টার এর নামে পেজ এই ধরণের পেজ গুলো ১ দিনে ১৫০০ এর ওপরে লাইক আসে আর যদি পেজ নিজের নামে বা মানুষ চেনে না এইরকম টাইপের পেজ হয় তাহলে লাইক কম আসে তারপরও বলা যায় না হয়তো লাইক বেশীও আসতে পারে ,মোট কথা পেজ যত ভালো হবে এবং পেজ যদি মানুষ পছন্দ করে তাহলে লাইক পাওয়া যাবে অনেক, আর যদি পেজ মানুষের কাছে ভালো না লাগে তাহলে কিন্তু মানুষ সেই পেজে লাইক দেবে না, আর প্রমোট মানে হচ্ছে আপনার ফেসবুক পেজ আমরা ফেসবুকে ছড়িয়ে দেব সবার প্রোফাইলে স্পন্সার অ্যাড হিসাবে যা সবাই দেখবে এবং লাইক দেবে সুতরাং লাইক নির্ভর করে পেজের ওপর ! তবে পেজে প্রতিদিন লাইক আসবে৫০-১০০০ এর ওপরে এবং প্রতিনদিন দেখবে ৫০০-২০০০ লোক।
4ফেসবুক অ্যাড একাউন্ট যে কারণে ফ্ল্যাগ হয়
ফেসবুকে ব্যবসায় প্রচারের জন্য একটি বিশেষ সার্ভিস হল ফেসবুক অ্যাড। ফেসবুক যেমন দিনে দিনে সবার কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে, ঠিক তেমনি ব্যবসায়ি বা অনলাইন মার্কেটারদের কাছেও ফেসবুক অ্যাড জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। তার কিছু বিশেষ কারণও রয়েছে। একটি অন্যতম কারণ হচ্ছে ফেসবুক অ্যাড। ফেসবুক অ্যাড দিয়ে যে কোন দেশের যে কোন বয়সের এবং পেশার মানুষকে টার্গেট করে বিজ্ঞাপন দেয়া যায়। তবে যে কোন পণ্য বিক্রয়ের জন্য ইচ্ছে মত অ্যাড তৈরি করলে ফেসবুক তা গ্রহন করে না। অ্যাড তৈরি করার পূর্বে অবশ্যই কিছু বিষয় মেনে অ্যাড তৈরি করতে হয়। তানা হলে ফেসবুক সেই অ্যাড এর অনুমোদন দেয় না। প্রায়ই দেখা যায় অনেকের অ্যাড অনুমোদন পায় না। অ্যাড তৈরি করার আগে অ্যাড গ্রহন না করার কারণ গুলো অবশ্যই জানা প্রয়োজন । ফেসবুক প্রত্যেকটি অ্যাড রিভিউ করার সময় খুব ভালো ভাবে দেখে যে ফেসবুকের অ্যাড পলিসিগুলো মেনে অ্যাড দেয়া হয়েছে কি না।

Questions and answers

1সর্বনিম্ন কত টাকার এ্যাড দেয়া যাবে?
সর্বনিম্ন 600 টাকা দিয়ে শুরু করা যাবে যার মেয়াদ থাকবে ৭ দিন । যদি আপনি এর থেকেই বেশি বাজেট দিতে চান সেটাও দিতে পারবেন, আপনার অ্যাড এর বাজেট যদি বেশী হয় তাহলে বিশেষ ছাড়ের ব্যবস্থা রয়েছে। সেই জন্য আলাদা সুযোগ থাকবে
2রিপোর্ট কিভাবে দেখা যাবে? কত খরচ হলো তা কিভাবে জানতে পারব?
বিজ্ঞাপন শুরু হওয়ার পর স্বাভাবিকভাবেই পেজের রিচ বা লাইক বেড়ে যাবে এবং সেটার নোটিশ প্রতিনিয়ত আপনার নোটিফিকেশন ট্যাবে পাবেন। এছাড়া ফ্যান পেজের উপরের দিক থেকে ‘Insights’ এ ক্লিক করে বিস্তারিত জানতে পারবেন। এছাড়া প্রয়োজনে প্রতিনিয়ত আমাদের বিজনেস এ্যাকাউন্ট থেকে স্ক্রিনশন রিপোর্ট দিয়ে থাকি।
3আমরা কি কারেন্সিতে অ্যাড দিয়ে থাকি?
আমরা ডলারে প্রমোট বা বোস্ট প্রোভাইড করি না, আমরা প্রিপেইড অ্যাড একাউন্ট মালয়েশিয়ান কারেন্সি (RM) দিয়ে অ্যাড দিয়ে থাকি সুতরাং ডলার এর সাথে আমাদের কোনো হিসাব নাই. প্রতিদিন RM3 দিয়ে ৭ দিনে RM21 দিয়ে প্রমোট দিয়ে থাকি ৬০০ টাকার পেকেজে , যদি আপনি বেশি RM ব্যাবহার করতে চান তাহলে প্রতি RM3=85 টাকা করে পেমেন্ট করতে হবে, অর্থাৎ 6RM=170 Tk, 9RM= 255 Tk

Why it's worth to choose Facebook Ads?

Safety

Stability

Technical support

Complete solutions